GoomZoom
Nonstop Entertainment

রথ যাত্রার সময় রথ চলতে চলতে হঠাৎ থেমে যায় কেন? কী রয়েছে এর পেছনে আসল রহস্য? জানুন চমকপ্রদ তথ্য

আষাঢ় মাস মানেই জগন্নাথ দেবের আরাধনা আর রথযাত্রা।পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে মহাসমারোহে পুজো হয় জগন্নাথ দেবের। প্রচুর ভক্তবৃন্দ আসেন , ধনী , দরিদ্র, জাতি বর্ণ নির্বিশেষে সকলেই জগন্নাথের রথের দড়িতে টান দেন। কিন্তু এই জগন্নাথ ধাম বা রথ যাত্রা নিয়ে জমে আছে অনেক রহস্য।

রথের দড়ি টানার জন্য বহু মানুষ কাতারে কাতারে ভিড় করেন। জগন্নাথের তিনটি রথের মধ্যেই বিরাজ করে ৩৩ কোটি দেবতা। তাই সকলেই রথের দড়ি একবার টান দিয়ে পূণ্য অর্জন করতে চায়।

আমাদের মানব দেহ যেমন ২০৬ টি হাড় দিয়ে তৈরি তেমনি রথ তৈরি করতে ২০৬ টি কাঠ লাগে। প্রতি বছর এই রথ নতুন করে তৈরি করা হয়।

জগন্নাথদেব এই রথে চেপে বলরাম ও সুভদ্রাকে নিয়ে সাতদিন এর জন্য যান তার মাসির বাড়ি। জগন্নাথ দেবের এই রথযাত্রা কে বলা হয় সোজা রথ। একই নিয়ম মেনে ৭দিন পর জগন্নাথ আবার ফিরে আসেন নিজের বাড়ি। তখন তাকে বলা হয় উল্টো রথ।মনে করা হয় রথের দড়ি একবার টান দিলেই পূণ্য অর্জন করা হয়।

কারণ কথিত আছে স্বয়ং বাসুকিনাগ রথের দড়ি হিসাবে নিজেকে নিবেদন করেছিলেন, তাই বাসুকিনাগের আশির্বাদ পাওয়ার জন্য সকলেই রথের দড়ি টানেন।

রথ মাঝে মাঝে চলতে চলতে থেমে যায় কারণ জগন্নাথের ইচ্ছাশক্তি দিয়েই রথ চলে, অনেক মানুষের মধ্যে জগন্নাথ দেব যখন রাধার জন্য বিভোর মহাপ্রভু কে দেখতে পান না, তখন মাঝে মাঝে রথ থেমে যায়। আজও রাধাভাবে বিভোর মহাপ্রভু রথে অচল জগন্নাথকে দেখে নৃত্য করতে করতে যায়। তাই যাত্রাপথে মাঝে মাঝে রথ চলতে চলতে থেমে যায়।

Comments
Loading...