GoomZoom
Nonstop Entertainment

করোনার বিরুদ্ধে লড়তে তৈরি আরও এক হাতিয়ার, শীঘ্রই ভারতে ছাড়পত্র পেতে চলেছে ফাইজারের টিকা

দ্রুতই ভারতে আসতে চলেছে আরও এক টিকা। ভারতে ছাড়পত্র পাওয়ার পথে মার্কিন সংস্থা ফাইজারের টিকা। এই সংস্থার প্রধান অ্যালবার্ট বোরলা জানান যে ভারতে জরুরি ভিত্তিতে এই টিকাকে ছাড়পত্র দেওয়ার প্রক্রিয়া প্রায় চূড়ান্ত।

উল্লেখ্য, জার্মানির বায়োএনটেক সংস্থার সঙ্গে ফাইজার যৌথভাবে করোনার এই টিকা তৈরি করেছে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ফাইজারের এই টিকা করোনা সংক্রমণের বিরুদ্ধে ৯৫ শতাংশ কার্যকরী। তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার পরই এমন দাবী করা হয়েছে। এমনকি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রতে ১২ বছরের ঊর্ধ্ব সকলকে ফাইজারের এই টিকা দেওয়ার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

ফাইজারের এই টিকাকে কেন্দ্র আইনি সুরক্ষাকবচ দিত পারে বলেও জানা যাচ্ছে। কিছুদিন আগেই ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার তরফে জানানো হয়েছে যে নির্দিষ্ট কিছু দেশে ছাড়পত্র পেয়েছে ও হু-এর তালিকায় রয়েছে, এমন টিকার এ দেশে ট্রায়ালের প্রয়োজন নেই।

ট্রায়াল ছাড়াই তা এ দেশে ছাড়পত্র পাবে। এবার এই ঘোষণার পর ফাইজারের টিকা যে বেশ শীঘ্রই অনুমোদন পেতে চলেছে সে নিয়ে আর কোনও সংশয় থাকে না।

ফাইজার ও বায়োএনটেকের তৈরি এই টিকা থেকে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবডির প্রভাব মানুষের মধ্যে কম। যদিও ফাইজারের দাবী ছিল, ভারতে যে করোনা ভাইরাস মিলেছে সে ক্ষেত্রে এই টিকা অনেকটাই কার্যকরী।

কিন্তু গবেষণায় দেখা যাচ্ছে ডেলটা ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানিএ সংস্থার এই টিকা মাত্র ৩২ শতাংশ কাজ করছে।

অন্যদিকে আবার ল্যানসেটের দাবী, করোনার আসল স্ট্রেনে ফাইজারের এই টিকা কাজ করে ৭৯ শতাংশ। তবে আলফা ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে তা কমে দাঁড়ায় মাত্র ৫০ শতাংশে, ডেলটা ভ্যারিয়েন্টে ৩২ শতাংশ ও বিটা ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে এর কার্যকারিতা নেমে যায় মাত্র ২৫ শতাংশে।

Comments
Loading...
error: Content is protected !!