GoomZoom
Nonstop Entertainment

সামনেই রবিবার, বর্ষার আমেজে দুপুরে জমিয়ে হয়ে যাক মটন ডাকবাংলো!

শক্তি চট্টোপাধ্যায়, সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের গল্পে ডাকবাংলোতে ছুটি কাটাতে গিয়ে “চৌকিদার” বলে হাঁক পাড়তেই বেরিয়ে আসতেন চৌকিদার যিনি কিনা রান্নাও করতেন। এছাড়াও অন্যান্য গল্প-উপন্যাসেও দেখা মেলে ডাকবাংলো এবং চৌকিদারদের। এই চৌকিদার বা তাঁর স্ত্রীর হাতেই জন্ম নিয়েছে বিখ্যাত এবং সুস্বাদু বিভিন্ন রান্না (Dishes) যার মধ্যে অন্যতম হল মটন ডাকবাংলো (Mutton Dakbungalow)। কব্জি ডুবিয়ে তা চেটে পুটে খেত ডাকবাংলোতে থাকতে আসা অতিথিরা।

Mutton Dakbungalow

এর সঙ্গে জড়িয়ে থাকা ইতিহাস একটু জেনে নেওয়া যাক। ১৮৪০ সালে ব্রিটিশরা ভারতের নানা সুন্দর সুন্দর জায়গায় কিছু ডাকবাংলো তৈরি শুরু করেন। ভ্রমণপিপাসু সাহেবরা সেখানে তাদের পরিবারকে নিয়ে উঠেন এবং ডাকবাংলোর চৌকিদার বা খানসামা অথবা তাদের স্ত্রীদের হাতের দেশি মাংস রান্না খেয়ে অত্যন্ত প্রশংসা করতেন। এই ভাবেই জন্ম নিয়েছে এই বিখ্যাত ডিশ। এখন করোনা পরিস্থিতিতে ডাকবাংলো যাওয়া না হলেও বাড়িতেই বানাতে পারেন সুস্বাদু ডিশটি।

লালচে ঘন ঝোলের মধ্যে মটনের বড় টুকরো, পাশে উঁকি দিচ্ছে সেদ্ধ হাঁসের ডিম, সব মিলিয়ে লা জবাব!

উপকরণগুলো ঘরোয়া বাড়িতে বানাতে অসুবিধা হবে না। আসুন জেনে নিই এই ডিশের রেসিপি।

উপকরণ:
হাড় সহ মটনের টুকরো- ৮টি
টক দই- ২ বড় চামচ
ছোট এলাচ-লবঙ্গ-দারুচিনি- ৭/৮টি করে
সাদা গোলমরিচ – ২ চামচ
সাদা পিঁয়াজ-৪ টি
স্টার অ্যানিস – ২ টি,
আদা রসুন বাটা- ৪ বড় চামচ
কাশ্মীরি লঙ্কা ও হলুদ বাটা-৪ বড় চামচ
গোটা শুকনো লঙ্কা -৪টি
জিরে বাটা – ২ চামচ
টমেটো- ২টি
স্বাদমত নুন ও চিনি
সর্ষে তেল
হাঁসের ডিম সেদ্ধ – ৪ টি

প্রণালী: প্রথমে মটন ধুয়ে জল ঝরিয়ে দই, সাদা মরিচ গুঁড়ো, নুন মাখিয়ে ম্যারিনেট করে রাখতে হবে। এরপর কড়াইয়ে সর্ষের তেল দিয়ে তাতে সাদা পিঁয়াজ লাল করে ভেজে নিতে হবে। প্রয়োজনে একটু চিনি দেবেন ফলে ক্যারামেলাইজড হয়ে লাল রং চলে আসবে। এর সঙ্গে যা যা মশলা নিয়েছেন তা দিয়ে কষে নিন। সমস্ত মশলা ও পিঁয়াজ ভালোভাবে কষা হয়ে গেলে এরপর ম্যারিনেট করা মাংস দিয়ে দেবেন। তারপর আরো কিছুক্ষণ কষিয়ে গরম জল ঢালবেন। ঢিমে আঁচে কিছুক্ষণ ফুটিয়ে মাংস ভালো করে সেদ্ধ হয়ে গেলে নামিয়ে নেবেন। এরপর যে হাঁসের ডিমগুলো সেদ্ধ করে ছিলেন সেগুলি দিয়ে সাজিয়ে নেবেন। গোটা শুকনো লঙ্কা গুলো ভেজে উপরে ছড়িয়ে দেবেন তারপর গরম ভাত অথবা রুটির সঙ্গে পরিবেশন করুন। চাইলে আপনি প্রেশার কুকারে রান্না করতে পারেন তবে যদি স্বাদ অতুলনীয় পেতে হয় তাহলে কড়াইতে রান্না করাই উচিত।

তাহলে আসছে রবিবার দুপুর বেলা গরম ভাতের সঙ্গে জমিয়ে হয়ে যাক গরম গরম মটন ডাকবাংলো?

Comments
Loading...
error: Content is protected !!