GoomZoom
Nonstop Entertainment

‘কনেবউ’-তে দুর্দান্ত সাফল্যের পর ‘মিঠাই’, জেনে সৌমিতৃষার ঊর্ধ্বমুখী কেরিয়ার গ্রাফের রহস্য

কিছুদিন আগেই জি বাংলায় শুরু হয়েছে নতুন ধারাবাহিক ‘মিঠাই’। প্রথম থেকে মিষ্টি এই ধারাবাহিক সকল দর্শকের মন জয় করে নিয়েছে। টিআরপির দৌড়েও প্রথম স্থানে রয়েছে এই ধারাবাহিক। জনপ্রিয় হারিয়ে যাওয়া মিষ্টি মনোহরাকে ফের বাংলায় ফিরিয়ে আনতে শুরু হয়েছে এই ধারাবাহিক।

অল্প কিছুদিনের মধ্যেই বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই ধারাবাহিক। সিদ্ধার্থ ওরফে সিড ও মিঠাই হল এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র। তাদের সম্পর্কের টানাপড়েনেই এগোচ্ছে গল্প। মিঠাই জনাইয়ের এক মিষ্টি বিক্রেতা। ঘটনাচক্রে তাঁর বিয়ে হয় কলকাতার বিখ্যাত মিষ্টি প্রস্তুতকারক মোদক পরিবারের গম্ভীর ছেলে সিডের সঙ্গে। কিন্তু এই বিয়েকে মেনে নিতে নারাজ সিড।

গম্ভীর সিড ভালোবাসায় বিশ্বাসই করে না। তাই মিঠাইয়ের সঙ্গে মাঝেমধ্যেই খারাপ ব্যবহার করে ফেলে সে। এবার সেই গম্ভীর সিডেরই নকল করে দেখাল মিঠাই ওরফে সৌমিতৃষা। তাঁকে সম্বোধন করে ‘উচ্ছেবাবু’ বলে।

এই মিঠাই-এর চরিত্রে অভিনয় করছেন সৌমিতৃষা কুণ্ডু। বেশ অল্প সময়েই বেশ ভালো জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন তিনি। তবে সৌমিতৃষার কিন্তু এটাই প্রথম ধারাবাহিক নয়। এই ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি কাজ করছেন গত ৫ বছর ধরে। ‘এ আমার গুরুদক্ষিণা’ ধারাবাহিকে খলনায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। এরপর একে একে ‘অলৌকিক না লৌকিক’, ‘জয়কালি কলকাত্তাওয়ালী’, ‘গোপাল ভাঁড়’ এসব ধারাবাহিকে পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করেছেন সৌমিতৃষা।

এরপর নিজের অভিনয়ের জোরেই ‘কনে বউ’-এ প্রধান চরিত্র পেয়ে যান অভিনেত্রী। এই ধারাবাহিক শেষ হতে না হতেই ‘মিঠাই’ এ সুযোগ পেয়ে যান অভিনেত্রী। মডেলিং দিয়ে কেরিয়ার শুরু তারপরেই টেলিভিশন। এমনকি, কখনও অডিশনও দিতে হয়নি তাঁকে। প্রায় ৫ বছর ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়াতেও তাঁর ফলোয়ার্স সংখ্যা প্রায় এক লক্ষ ছুঁইছুঁই।

Comments
Loading...
error: Content is protected !!